Advertisement

Sunday, February 14, 2016

আলোকবর্ষের ১৫ ব্যবহার

আমরা জানি, আলোর এক বছরে অতিক্রান্ত দূরত্বকে আলোকবর্ষ বলে। এ জন্যেই এই নিবন্ধে আমরা সেটা আলোচনা করতে যাচ্ছি না। আমরা এখানে দেখতে চাচ্ছি, এই এককটি আসলে কী কাজে লাগে। তবে কয়েকটি মান আবার জাবর কেটে নেওয়া উচিত। আলোর বেগ হচ্ছে সেকেন্ডে ১ লক্ষ ৮৬ হাজার মাইল বা ৩ লক্ষ কিলোমিটার। আর আলোকবর্ষের মান প্রায় ৯ ট্রিলিয়ন কিলোমিটার বা প্রায় ৬ ট্রিলিয়ন মাইল।

এই এককটি ব্যবহারের মাধ্যমে মহাজাগতিক বিভিন্ন বস্তুর দূরত্বের তাৎপর্য এবং পারস্পরিক তুলনা খুব সহজে করা যায়।  সাধারণত নক্ষত্র এবং ছায়াপথের দূরত্ব পরিমাপের ক্ষেত্রে এটি বেশি ব্যবহৃত হয়।এর ব্যবহারগুলো দেখা যাকঃ-
১. এখন পর্যন্ত মানুষের পাঠানো সবচেয়ে দূরবর্তী মহাকাশযান হচ্ছে ভয়েজার ১। ২০১৪ সালের অক্টোবরে এর দূরত্ব ছিল ১৮ আলোকঘণ্টা। বুঝতেই পারছেন, আলো এক ঘণ্টায় যত দূর যাবে সেটাই আসলে এক আলোকঘণ্টা। বর্তমানে সূর্যের সাপেক্ষে যানটির বেগ সেকেন্ডে ১৭ কিলোমিটার (ঘন্টায় ৩৮ হাজার মাইল)। এই বেগ নিয়ে চলতে থাকলে যানটি আরো প্রায় ১৭ হাজার ৫০০ বছর পরে ১ আলোকবর্ষ দূরত্বে পৌঁছবে। ২০১২ সালের আগস্টে এটি প্রথম কোন যান হিসেবে সৌরজগতের চৌহদ্দি পার হয়।
আন্তঃনাক্ষত্রিক জগতে বিচরণ করছে ভয়েজার ১। ছবিঃ নাসা

২. সৌরজগতের অন্যতম দূরবর্তী  অঞ্চল উর্ট ক্লাউডের ব্যাস প্রায় ২ আলোকবর্ষ।
৩. সূর্যের নিকটতম নক্ষত্র প্রক্সিমা সেন্টোরির দূরত্ব ৪.২২ আলোকবর্ষ।
৪. সূর্যের অভিকর্ষের সর্বোচ্চ পাল্লা ২ আলোকবর্ষ পর্যন্ত বিস্তৃত। এর বাইরে সূর্যের আধিপত্যে নাক গলায় আন্তঃনাক্ষত্রিক বস্তু।
৫. লুব্ধক আমাদের রাতের আকাশের সবচেয়ে উজ্জ্বল নক্ষত্র। এর দূরত্ব ৮.৬ আলোকবর্ষ।
৬. এইচডি ১০৭০০ ই (HD 10700 e) একটি সম্ভাব্য বাসযোগ্য বহির্গ্রহ (Exoplanet)। এর দূরত্ব ১১.৯ আলোকবর্ষ।
আরো পড়ুনঃ বৃহত্তম বহির্গ্রহ; ট্রেস-৪

৭. গ্লিজ ৫৮১ (Gliese 581) একটি লোহিত বামন নক্ষত্র। এর চারদিকে প্রদক্ষিণরত বেশ কিছু বাসযোগ্য গ্রহ পাওয়া গেছে। নক্ষত্রটির দূরত্ব ২০ আলোকবর্ষ।
৮. রাতের আকাশের ২য় উজ্জ্বল নক্ষত্র সুহাইল (Canopus)। এর দীপ্তি সূর্যের ১৫ হাজার গুণ। দূরত্বে এটি ৩১০ আলোকবর্ষ।
৯. আমাদের নিজস্ব গ্যালাক্সি মিল্কিওয়ের কেন্দ্র ২৬ হাজার আলোকবর্ষ দূরত্ব অবস্থিত।
১০. মিলিওয়ের নিজের ব্যাস প্রায় ১ লাখ আলোকবর্ষ।
১১. অ্যান্ড্রোমিডা গ্যালাক্সি প্রায় ২৫ লাখ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত।
১২. খালি চোখে দৃশ্যমান সবচেয়ে দূরবর্তী বস্তু হচ্ছে ট্রায়াঙ্গুলাম গ্যালাক্সি। এর দূরত্ব ৩০ লাখ আলোকবর্ষ।
১৩. আমাদের নিকটতম গ্যালাক্সি ক্লাস্টার বা ছায়াপথ স্তবক ভার্গো ক্লাস্টারের দূরত্ব ৫ কোটি ৯০ লাখ আলোকবর্ষ।
১৪. ছায়াপথের দেয়াল স্লোয়ান গ্রেট ওয়ালের (Sloan Great Wall) দূরত্ব এক বিলিয়ন আলোকবর্ষ।
১৫. সবচেয়ে উজ্জ্বল কোয়াসার ৩সি ২৭৩ (3C 273) এর দূরত্ব ২.৪ বিলিয়ন আলোকবর্ষ।

সূত্রঃ
[১] উইকিপিডিয়াঃ Light year


Advertisement 02

Unknown

লেখকের পরিচয়