Advertisement

Friday, August 26, 2016

শনির উপগ্রহ মাইমাস 

মাইমাস হল শনির একটি উপগ্রহ। ১৭৮৯ সালে উইলিয়াম হার্শেল এটি আবিষ্কার করেন। ছবিতে যে বিশাল খাদটি দেখা যাচ্ছে সেটার নামও রাখা হয়েছে তাঁর নামানুসারেই। এটি সৌরজগতের ২০তম বৃহত্তম উপগ্রহ। নিজস্ব মহাকর্ষের কারণে যেসব বস্তুরা গোলাকার আকৃতি পেয়েছে তাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত জানা মতে এটিই সবচেয়ে ছোট বস্তু।
এই ছবিটি তুলেছে মহাকাশযান ক্যাসিনি, ২০১০ সালে।

আরো পড়ুনঃ
এক নজরে শনি গ্রহ
Category: articles

Friday, May 6, 2016

বলছি শনির উপগ্রহ টাইটানের কথা। এতে আছে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ তরল পদার্থ। চমকে গেলেন নিশ্চয়ই? পানি নাকি!
নাহ! পানি নয়। সমুদ্র ঠিকই আছে বটে, তবে সেটা পানির নয়, হাইড্রোকার্বন দিয়ে গড়া। হাইড্রোজেন ও কার্বন সমৃদ্ধ জৈব যৌগকে হাইড্রোকার্বন বলে। টাইটানে মিথেন ও ইথেন (অ্যালকেন পরিবারের) দুটোই থাকলেও বিশুদ্ধ ইথেন এর উল্লেখযোগ্য অংশ দখল করে আছে। সব মিলিয়ে টাইটানের পৃষ্ঠে তরলের পরিমাণ ২ পারসেন্ট। 
প্রায় অবলোহিত আলোতে তোলা টাইটানের পৃষ্ঠে সূর্যের আলোর ঝলক। ছবি নাসার ক্যাসিনি যানের তোলা। 

২০০৭ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে ক্যাসিনি মহাকাশযানের পাঠানো ছবি যাচাই করে সম্প্রতি মিথেন সম্পর্কে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া সম্ভব হয়েছে। 
শনির বৃহত্তম এই উপগ্রহটিতে মোট তিনটি সমুদ্র আছে। এর সবগুলোই উত্তর মেরুর কাছাকাছি অঞ্চলে অবস্থিত। পাশাপাশি, এতে আছে অনেকগুলো ছোট ছোট লেক বা হ্রদ। 
শনির উপগ্র টাইটানে তরলের স্রোত 
সূত্রঃ
আর্থ স্কাই
Category: articles